মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানের ৩য় বার্ষিকী উপলক্ষ্যে 'নীরব ধর্মঘট'

২০২১ সালে সেনাবাহিনী একটি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা গ্রহণের তিন বছরপূর্তিতে সারা মিয়ানমার জুড়ে জনগণ তাদের ভাষায় "নীরব ধর্মঘট" পালন করেছেন।

মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী দলগুলো সামরিক জান্তার প্রতি অবজ্ঞা প্রদর্শন করতে জনগণকে ঘরে থাকার আহ্বান জানাচ্ছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ধর্মঘট শুরু হওয়ার পর বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনের রাস্তাগুলো অনেকটা ফাঁকা ছিল। অল্প কিছু পথচারী ও যানবাহন দেখা গেছে, যা সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে জনসাধারণের তীব্র বিরোধিতার প্রতিফলন ঘটায়। সামরিক বাহিনী আরও ছয় মাসের জন্য জরুরি অবস্থা বাড়ানোর একদিন পর এই ধর্মঘট পালিত হল।

এর আগের বছরের নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছিল এমন দাবি করে, সামরিক নেতারা ২০২১ সালের ১লা ফেব্রুয়ারি এক অভ্যুত্থান ঘটানোর পর থেকেই ৩ বছর ধরে এই জরুরি অবস্থা চলছে।

তারা অং সান সুচিকে ক্ষমতাচ্যুত ও আটক করেন, যার দল নিরঙ্কুশভাবে জয়লাভ করেছিল। তারা বেসামরিক বিক্ষোভকারীদের উপর দমন অভিযানও চালায়।