গাজায় মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে: স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ

গাজার স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর থেকে ফিলিস্তিনের এই অংশে নিশ্চিত মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

হামাসকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্য নিয়ে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনিস এবং গাজার অন্যান্য স্থানে বিমান হামলা এবং স্থল আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে।

স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ রবিবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১৭৮ জন প্রাণ হারিয়েছে, যার ফলে মোট মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ১০৫-এ এসে দাঁড়িয়েছে।

আন্তর্জাতিক সহায়তা সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন, গাজা কর্তৃপক্ষের তথ্যের ভিত্তিতে জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে ১০ হাজারেরও বেশি শিশু।

ক্রমবর্ধমান সংখ্যক বেসামরিক লোকজনের হতাহতের পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র ও আরব দেশগুলো বলছে, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের উচিত দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধানের মাধ্যমে শান্তি অর্জন করা।

তবে, ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু শনিবার সামাজিক মাধ্যমে বলেছেন, তিনি গাজার উপর "পূর্ণ ইসরায়েলি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে কোনো আপস করবেন না"। তিনি বলেন, এটি একটি ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের পরিপন্থী।

কিছু ইসরায়েলি তার কঠোর অবস্থানের বিরোধিতা করছে। শনিবার কেন্দ্রীয় তেল আবিবে তার প্রশাসনের পদত্যাগ ও নির্বাচনের দাবি জানিয়ে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়।

এদিকে হামাসের সমর্থনকারী ইরান শনিবার জানিয়েছে, সিরিয়ায় তাদের পাঁচ সামরিক উপদেষ্টা ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছেন।

পাশাপাশি, ইসরায়েল এবং লেবাননের ইরান সমর্থিত শিয়া গ্রুপ হিজবুল্লাহও গোলাগুলি বিনিময় অব্যাহত রেখেছে, যার ফলে মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে উত্তেজনা বৃদ্ধি পাচ্ছে।